১৯তম স্প্যানে দৃশ্যমান হলো ২ হাজার ৮৫০ মিটার

0
99

ডেস্ক রিপোর্ট। ।

শরীয়তপুরের জাজিরা ও মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তের মধ্যবর্তী স্থানে পদ্মা সেতুর ২১ ও ২২ নম্বর পিলারের উপর বসানো হয়েছে ১৯তম ‘৪-সি’ স্প্যান। বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) দুপুর পৌনে দুইটার সময় স্প্যানটি বসানো সম্পন্ন হয়। ১৯তম স্প্যানটি স্থায়ীভাবে বসানোর মাধ্যমে দৃশ্যমান হলো সেতুর ২ হাজার ৮৫০ মিটার।

সকাল সাড়ে ৮টায় দিকে মুন্সীগঞ্জের মাওয়া কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ধূসর রংয়ের ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্য ও ৩ হাজার ১৪০ টন স্প্যানটিকে ৩ হাজার ৬০০ টন ধারণক্ষমতার ‘তিয়ান-ই’ ভাসমান ক্রেনের মাধ্যমে ২১ ও ২০ নম্বর পিলারের কাছে নেওয়া হয়। দুপুরে স্প্যানটি বসানো সম্পন্ন হয়।

পদ্মা সেতু প্রকল্পের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. হুমায়ন কবীর জানান, পদ্মা নদী এখন অনেকটা শান্ত। নেই আগের মতো স্রোতে নদী শান্ত হওয়ায় সেতুর কাজে এনেছে ব্যাপক গতি। গেল বর্ষা মৌসুমে ৪ মাসে বসানো গেছে মাত্র ১টি স্প্যান।  সেখানে গত এক মাসেরও কম সময়ের এবার বসনো হলো ৩টি স্প্যান।

তিনি আরো জানান, পদ্মা সেতুতে মোট ৪২টি পিলারের মধ্যে বর্তমানে কাজ সম্পন্ন হয়েছে ৩৫টির। সেতুতে ২ হাজার ৯৫৯টি রেলওয়ে স্লাব ও ২ হাজার ৯১৭টি রোডওয়ে স্লাব বসবে। পদ্মা সেতুর মোট ৪১টি স্প্যানের মধ্যে চীন থেকে মাওয়ায় এসেছে ৩৩টি স্প্যান। এর মধ্যে ১৮টি স্প্যান স্থায়ীভাবে বসে গেছে। ৬ দশমিক ১৫ দৈর্ঘ্যের দ্বিতল সেতুটি কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে। চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না রেলওয়ে মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড মূল সেতু নির্মাণের কাজ করছে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here